ঢাকা, রবিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২১

বাংলাদেশ এবং স্পেনের কৃষিক্ষেত্রে প্রযুক্তি বিনিময়ের লক্ষে সেমিনার

বাংলাদেশ এবং স্পেনের কৃষিক্ষেত্রে প্রযুক্তি ও অভিজ্ঞতাবিনিময়ের লক্ষে জুম মাধ্যমে আয়োজিত ওয়েব সেমিনারে অংশগ্রহণকারীরা বলেছেন, স্পেনের আলমেরিয়া প্রদেশের কার্যকর এবং টেকসই কৃষি প্রযুক্তি যাচাই বাছাই করে বাংলাদেশে প্রয়োগ করলে তা বাংলাদেশের কৃষি উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) স্পেনের বাংলাদেশ দূতাবাসের কমার্শিয়াল উইং ও স্পেন বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি ঢাকার যৌথ উদ্যোগে এবং স্পেনের আলমেরিয়া চেম্বার অব কমার্স এর সহযোগিতায় ‘ইন্ট্রোডাকশন টু আলমেরিয়া এগ্রো ইনোভেশন’ শিরোনামে আয়োজিত এ ওয়েব সেমিনারে স্পেনে নিযুক্ত  বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারোয়ার মাহমুদ, বাংলাদেশে নিযুক্ত  স্পেনের রাষ্ট্রদূত ফ্রান্সিসকো বেনিতেজ সালাসসহ বাংলাদেশের কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, কৃষিমন্ত্রণালয়, বাণিজ্যমন্ত্রণালয়, বেসরকারিখাতের এগ্রো কোম্পানিসমূহের উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।


স্পেন বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি ও ওয়েব  সেমিনারের মডারেটর নুরিয়া লোপেজ সূচনা বক্তব্যে বলেন, ৫০-৬০বছর আগে আলমেরিয়া একটি অনুর্বর জায়গা ছিল, সেখানকার অধিবাসীরাও ছিল স্পেনের মধ্যে সবচেয়ে দরিদ্র। বর্তমানে কৃষিবিপ্লবের মাধ্যমে আলমেরিয়া স্পেনের অর্থনৈতিকভাবে উন্নত স্থানগুলির মধ্যে  অন্যতম। আলমেরিয়ার চেম্বার অব কমার্সের ডিরেক্টর জেনারেল ভিক্টর ক্রুজ মেদিনা এবং ইনমা খুরাদো আলমেরিয়া এগ্রিকালচারাল মডেলের মৌলিক বিষয় তুলে ধরে একটি পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপনা করেন।


সেমিনারে স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারোয়ার মাহমুদ বাংলাদেশের কৃষিখাতের সম্ভাবনা এবং চ্যালেঞ্জ সম্পর্কে আলোকপাত করেন এবং এইখাতে প্রযুক্তির প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেন। তিনি আরো বলেন, আলমেরিয়ার কৃষি মডেল বাংলাদেশে প্রয়োগ এবং এর সম্ভাব্যতা পরীক্ষার জন্য বাংলাদেশ থেকে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সফরের আবশ্যকতা রয়েছে।


বাংলাদেশে নিযুক্ত স্পেনের রাষ্ট্রদূত ফ্রান্সিসকো বেনিতেজ সালাস তার বক্তব্যে বলেন, আলমেরিয়া একসময় স্পেনের স্বল্পোন্নত অঞ্চলগুলির মধ্যে একটি ছিল এবং এখন অনেক ইউরোপিয়ান দেশের সবজির যোগান দেয়া হচ্ছে এই আলমেরিয়া থেকে। কৃষিক্ষেত্রে ইতিবাচক পরিবর্তনের জন্য বাংলাদেশের নীতিনির্ধারক, স্টেকহোল্ডার এবং গবেষণা প্রতিষ্ঠানসমূহকে উৎসাহিত করতে স্পেন পাশে থাকবে বলেও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।


কৃষি উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত গুরুত্বপূর্ণ নীতিমালা উল্লেখ করে স্পেনে বাংলাদেশ দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সেলর রেদোয়ান আহমেদ বলেন, সরকার বর্তমানে কৃষি বাণিজ্যিকীকরণের দিকে জোর দিচ্ছে, যেখানে আলমেরিয়ার কৃষি মডেল বাংলাদেশে কিছু পরিবর্তনসহ অভিযোজিত হতে পারে।


বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার এবং বাংলাদেশের কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের ড. নাজিম উদ্দিন এ ওয়েব সেমিনার আয়োজনের জন্য সংশ্লিজনদের  কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, জৈবনিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা ব্যবহার করে নিরাপদ কৃষি উৎপাদন এবং জমির উৎপাদন বৃদ্ধিই আলমেরিয়ার মডেলের বৈশিষ্ট, যা বাংলাদেশ সরকারের কৃষিনীতি অগ্রাধিকারগুলির সাথে সংযুক্ত। তারা এ ধরণের প্রকল্প সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের পর প্রয়োগের ব্যাপারে ঐক্যমত পোষণ করেন।

বাংলাদেশ খাদ্য ও সবজি রপ্তানিকারক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন, এফবিসিসিআই প্রতিনিধি নাদিম এবং ইফাদ, প্যারাগন, প্যারামাউন্ট, ডেকো, সিডিএল, গোল্ডেনহারভেস্ট, প্রাণ-এগ্রো, এসিআই কৃষি কোম্পানিগুলোর চেয়ারম্যান, সিইও এবং এমডিবৃন্দ এ ওয়েব সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন।

ads
ads

করোনা পরিস্থিতি বাংলাদেশ

২৪ ঘণ্টায় মোট
পরীক্ষা ৩১৭১৪ ৮০৭৫৪০৭
আক্রান্ত ৬৯৫৯ ১৫,৫০,৩৭১
সুস্থ ৯২৬৮ ১৫,১০,১৬৭
মৃত ১৭৪ ২৭,৩৯৩

Our Facebook Page