ঢাকা, বুধবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২১

রংপুরে ৩০ হাজার টাকার জন্য শিশু রাব্বিকে হত‌্যা

রংপুরের মিঠাপুকুরে গোপালপুর ইউনিয়নের গোকর্ন গ্রাম থেকে শিশু গোলাম রব্বানী রাব্বীকে (৭) অপহরণ করে প্রতিবেশি দুই যুবক। শিশুটির বাব-মার কাছে ৩০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছিল তারা।  টাকা না পাওয়ায় শিশুটিকে হত্যার পর বস্তায় ভরে লাশ ধানক্ষেতে ফেলে দিয়েছিল খুনিরা। চার দিন পর রাব্বীর লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এর আগে চলতি বছরের ১৩ নভেম্বর (শুক্রবার) শিশুটিকে অপহরণ করে তারা।


মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) পুলিশের কাছে রাব্বী হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে তারা। পরে তাদের আদালতের মাধ্যমে রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। গ্রেপ্তার দুজন হলো- একই এলাকার বাদল মিয়ার ছেলে আল আমিন (১৬) এবং জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলে মহিদুল ইসলাম ওরফে মুশফিকুর (২৬)। 


মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) জাকির হোসেন বলেন, ‘গ্রেপ্তার দুজন চকলেট খাওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে কৌশলে রাব্বীকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে শিশুটিকে হাত-পা ও মুখ বেঁধে একটি বস্তায় ভরে রাখে। অন্য লোকের মাধ‌্যমে রাব্বীর বাবা-মায়ের কাছে ৩০ হাজার টাকা দাবি করে। হত দরিদ্র হওয়ায় রাব্বীর পরিবার তাদের দাবিকৃত টাকা দিতে ব‌্যর্থ হয়। এতে তারা ক্ষুদ্ধ হয়ে ওঠে।শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) রাতের কোন এক সময়ে বস্তায় ভরা রাব্বীকে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে হত্যা করে তারা। এরপর বস্তাবন্দি লাশ রাব্বীর বাড়ির পাশে একটি ধানক্ষেতে ফেলে দেয়। আলামিনের কাছ থেকে ৯টি মোবাইল সিম উদ্ধার করা হয়েছে। 


তিনি আরও জানান, অপহরণের চার দিন পর ১৬ নভেম্বর (সোমবার) সকালে ধানক্ষেতে লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয় এলাকাবাসী। এ ঘটনায় নিহতের মা বাদি হয়ে মিঠাপুকুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ এ দুজনকে গ্রেপ্তার করে।

করোনা পরিস্থিতি বাংলাদেশ

২৪ ঘণ্টায় মোট
পরীক্ষা ১৫৭২০ ৩৬০০৫০৮
আক্রান্ত ৫২৮ ৫৩৩৪৪৪
সুস্থ ৫০৯ ৪৭৭৯৩৫
মৃত ১৭ ৮০৭২

Our Facebook Page