ঢাকা, শনিবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০২২

হযরত হুদ (আঃ) এর জীবনীর একাংশ

মহান আল্লাহ 'আদ' জাতিকে সত্য পথের সন্ধান দেয়ার জন্য হযরত হুদ (আঃ) কে পাঠান। তিনি তাঁর জাতিকে সত্য,কল্যাণ ও মুক্তির পথে আসতে  আহ্বান জানান।  কিন্তু তারা নবীর আনিত সত্য গ্রহণ করার পরিবর্তে শুরু করলো তীব্র বিরোধিতা।  নবীর সাথে তাদের বিতর্কের একটি সংক্ষিপ্ত ইতিহাস পেশ করে পবিত্র কোরআন ইরশাদ করছে। 


"আমি 'আদ' জাতির  কাছে তাদের শুভাকাঙ্ক্ষী ও ভাই হযরত হুদ (আঃ) কে পাঠিয়েছিলাম। তিনি তাদের বললেন, " ও আমার জাতি তোমরা আল্লাহর দাসত্ব কবুল করো। তিনি ছাড়া তোমাদের কোন 'ইলাহ' নেই। তোমরা কি সাবধান হবে না। "  তাঁর জাতির বেঈমান নেতারা জবাব দিল " আমরা দেখছি তুমি বোকার স্বর্গে আছো। এবং আমরা তোমাকে মিথ্যুক বলে মনে করি। তিনি জবাব দিলেন আমি আল্লাহ প্রেরিত নবী। আমি তো আমার প্রতিপালকের দেয়া সংবাদসমূহ তোমাদের পৌঁছে দিচ্ছি। আর আমি তোমাদের একজন নির্ভরযোগ্য হিতাকাঙ্ক্ষী -সূরা আরাফ ৬৫-৭১

 

এভাবে হযরত হুদ (আঃ) অত্যন্ত আন্তরিকতা দিয়ে নিজের জাতিকে কল্যাণ ও মুক্তির দিকে ডাকেন। কিন্তু তারা তাঁর আহ্বানে সাড়া দেয়ার পরিবর্তে প্রচন্ড বিরোধিতায় অবতীর্ণ হয়েছিলো। তবুও তিনি জাতিকে তাদের অপরাধের অনিবার্য ফলস্বরূপ আসন্ন আজাব থেকে মুক্ত রাখার চেষ্টা করেছেন। 


দীর্ঘ ৫০ বছর পর্যন্ত চেষ্টা করেও তাদেরকে কল্যাণের পথে আনতে পারলেন না। অবশেষে একটানা ৩ টি বছর তাদের উপর দুর্ভিক্ষ চেপে বসে। তারপর ৭ রাত ও ৮ দিন পর্যন্ত এমন ভীষণ দমকা হাওয়া বয়েছিলো যে পাহাড়ের পাথর খন্ডগুলো তাদের গায়ের উপর এসে পড়েছিলো। ঠিক এমনি এক সময় একটা কালো মেঘ তাদের ঘিরে ফেলেছিলো। ফলে কিছু সংখ্যক ঈমানদার ছাড়া বাকি সবই ধ্বংস হয়ে গেলো। কোন কোন পরিসংখ্যান মতে তাদের সংখ্যা ছিল ৪ হাজারের মতো।

ads
ads

করোনা পরিস্থিতি বাংলাদেশ

২৪ ঘণ্টায় মোট
পরীক্ষা ১৮,৯৩৮ ৮০৭৫৪০৭
আক্রান্ত ১৬,০৩৩ ১,৭১৫,৯৯৭
সুস্থ ১,০৯৫ ১,৫৫৮,৯৫৪
মৃত ১৮ ২৮,২৫৬

Our Facebook Page