ঢাকা, শনিবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০২২

নীড়ের খোঁজে শেষ মুহূর্তে আবাসন মেলায় ভিড়

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে গত বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) থেকে শুরু হয়েছে রিহ্যাব আয়োজিত শীতকালীন আবাসন মেলা। মেলার শুরুর দিনে তেমন ক্রেতা-দর্শনার্থীর আগমন না হলেও দ্বিতীয় দিন থেকেই বাড়তে থাকে জনসমাগম। ক্রেতা-দর্শনার্থীর আগমণে প্রাণ ফিরে পায় মেলা প্রাঙ্গণ। এ মেলার পর্দা নামছে আজ। মেলার শেষ দিন হওয়ায় ক্রেতার আগমন রয়েছে চোখে পড়ার মতো।


সকাল থেকেই আসছেন ক্রেতা-দর্শনার্থীরা। চাহিদাও বেড়েছে ফ্ল্যাট-অ্যাপার্টমেন্টের। এতে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন আবাসন ব্যবসায়ীরা। তারা বলছেন, এবার ক্রেতাদের ফ্ল্যাট ও প্লট বুকিংয়ে রয়েছে আর্কষণীয় ছাড়। এ কারণে প্রতিনিয়তই ক্রেতার সাড়া ছিল।


সোমবার (২৭ ডিসেম্বর) সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, এদিন মেলা প্রাঙ্গণ উন্মুক্ত হওয়ার আগ থেকেই দর্শনার্থীদের পদচারণা ছিল বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র ও এর আশপাশে। সকাল ১০টায় সর্বসাধারণের জন্য মেলা উন্মুক্ত করে দেওয়া হলে সবাই প্রবেশ করেন মেলা প্রাঙ্গণে। শেষ মুহূর্তে পছন্দের আবাস বেছে নিতে ঘুরে ঘুরে দেখেন বিভিন্ন স্টল। অনেকেই আবার গৃহ নির্মাণ নিয়ে নানা পরামর্শ নেন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর স্টলে। একই সঙ্গে মেলায় আসা আবাসন কোম্পানিগুলোর নানা অফার আর ছাড় নিয়েও কথা বলেন তারা।


ক্রেতাদের এক থেকে দেড় হাজার স্কয়ার ফিটের ফ্ল্যাটের দিকে আগ্রহ বেশি। সেখানেই তারা বেশি বুকিং দিচ্ছেন। আগের চেয়ে চাহিদা বেড়েছে মাঝারি সাইজের ফ্ল্যাটেও। ক্রেতারা বলছেন, ছোট ও মাঝারি সাইজের রেডি ফ্ল্যাটের চাহিদা এবার তুলনামূলক বেশি। বেশিরভাগ কোম্পানিই ফ্ল্যাট বিক্রিতে বিভিন্ন ধরনের ছাড়ও দিচ্ছেন। অন্যদিকে চাহিদা রয়েছে রেডি প্লটেরও।


এ বিষয়ে ইস্ট ওয়েস্ট প্রপার্টি ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার জাহিরুজ্জামান জহির বলেন, এবারের মেলায় আমাদের রেডি প্লটগুলোকে আমরা তুলে ধরেছি। এসব প্লটের চাহিদা বেড়েছে। অনেকেই কনফার্ম করছেন মেলায় এবং অফিসে তারা বুকিং দিচ্ছেন। এসব প্লটে ক্রেতারা আজই বিল্ডিং করতে পারবেন।


আবাসন ব্যবসায়ীদের সংগঠন রিহ্যাব সহ-সভাপতি (প্রথম) কামাল মাহমুদ বলেন, এবারের মেলা নানা দিক দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও চ্যালেঞ্জিং ছিল। তবে ক্রেতার অভূতপূর্ব সাড়া পেয়েছি। ড্যাপ বাস্তবায়ন এবং রড-সিমেন্টের দাম বৃদ্ধি অনিশ্চয়তা সত্ত্বেও ক্রেতার আগমণ খুবই সন্তোষজনক।


বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত এই মেলায় স্থান পেয়েছে ২২০টি স্টল। এতে প্রায় ১৫০টি আবাসন প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। মেলা চলবে আজ রাত ১০টা পর্যন্ত। মেলায় ১৫টি নির্মাণসামগ্রী এবং ৩০টি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে।


মেলার সিঙ্গেল এন্ট্রির প্রবেশ ফি ৫০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। আর মাল্টিপল এন্ট্রির প্রবেশ ফি ১০০ টাকা। সিঙ্গেল এন্ট্রি টিকিটে একবার ও মাল্টিপল এন্ট্রি টিকিটে পাঁচবার মেলায় প্রবেশ করা যাবে। সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত ক্রেতা দর্শনার্থীরা মেলায় প্রবেশ করতে পারছেন। মেলা উপলক্ষে এন্ট্রি টিকিটের উপর র‌্যাফেল ড্র’তে থাকছে আকর্ষণীয় পুরস্কার।


২০০১ সাল থেকে ঢাকায় রিহ্যাব হাউসিং ফেয়ার শুরু হয়। এছাড়া চট্টগ্রামে ১৪টি মেলা সফলভাবে সম্পন্ন করেছে রিহ্যাব। প্রতিষ্ঠানটি ২০০৪ সাল থেকে বিদেশে হাউসিং ফেয়ার আয়োজন করে আসছে। এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ১২টি, যুক্তরাজ্য, দুবাই, ইতালির রোম, কানাডা, সিডনি, কাতারে একটি করে এবং দুবাইতে দুইটি রিহ্যাব হাউসিং ফেয়ার সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। এসব ফেয়ার আয়োজনের মাধ্যমে রিহ্যাব দেশে-বিদেশে গৃহায়ণ শিল্পের বাজার সৃষ্টি এবং তা প্রসারের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখছে।

ads
ads

করোনা পরিস্থিতি বাংলাদেশ

২৪ ঘণ্টায় মোট
পরীক্ষা ১৮,৯৩৮ ৮০৭৫৪০৭
আক্রান্ত ১৬,০৩৩ ১,৭১৫,৯৯৭
সুস্থ ১,০৯৫ ১,৫৫৮,৯৫৪
মৃত ১৮ ২৮,২৫৬

Our Facebook Page