ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ মে, ২০২২

রোজা রেখে ইনহেলার ব্যবহার করা যাবে না

শ্বাসকষ্ট রোগে আক্রান্তরা চিকিৎসকের পরামর্শে ইনহেলার ব্যবহার করেন। মূলত শ্বাসকষ্ট প্রতিরোধে ইনহেলার ব্যবহার করা হয়। শ্বাসকষ্টের রোগীকে বিশেষ পদ্ধতিতে মুখের ভেতরভাগে স্প্রে করতে হয়। এতে শ্বাসরুদ্ধ জায়গাটি প্রশস্ত হয়ে যায়। ফলে শ্বাস চলাচলের কষ্ট দূর হয়। যদিও স্প্রে করার সময় ওষুধটি গ্যাসের মতো দেখায়, কিন্তু বাস্তবে এটি দেহবিশিষ্ট তরল ওষুধ। তাই মুখের ভেতরে স্প্রে করার কারণে রোজা ভেঙে যাবে।


সেহরির শেষ সময় এবং ইফতারের প্রথম সময় ইনহেলার ব্যবহার করলে যদি তেমন অসুবিধা না হয় তবে রোজা অবস্থায় ইনহেলার ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকা জরুরি। কিন্তু অসুস্থতা বেশি হওয়ার কারণে যদি দিনেও ব্যবহার করা জরুরি হয় তা হলে তখন ব্যবহার করতে পারবে।


সেক্ষেত্রে করণীয় হচ্ছে- ১. ওজরের কারণে দিনের বেলা ইনহেলার ব্যবহার করলেও অন্যান্য পানাহার থেকে বিরত থাকা। ২. পরবর্তী সময়ে রোগ ভালো হলে এর কাজা করে নেওয়া। ৩. আর ওজর যদি আজীবন থাকে তা হলে ফিদয়া আদায় করতে হবে। অনেককে বলতে শোনা যায়- ইনহেলার অতি প্রয়োজনে ব্যবহার করা হয়, তাই এতে রোজা ভঙ্গ হবে না। তাদের এ উক্তিটি সঠিক নয়। কেননা কেউ যদি ক্ষুধার তাড়নায় মৃত্যুমুখে পতিত হয়ে অতি প্রয়োজনে কিছু খেয়ে ফেলে, তা হলে অতি প্রয়োজনে খাওয়ার কারণে রোজা ভেঙে যাবে। সুতরাং ইনহেলার অতি প্রয়োজনে ব্যবহার করলেও রোজা ভেঙে যাবে এবং পরে রোজার কাজা দিতে হবে। (সুরা বাকারা, আয়াত : ১৮৪; মাজমাউল আনহুর : ১/৩৬৬; রদ্দুল মুহতার : ২/৩৯৫; হেদায়া : ১/১২০)

ads
ads

করোনা পরিস্থিতি বাংলাদেশ

২৪ ঘণ্টায় মোট
পরীক্ষা ৩৪০৬৭ ২৯৩২৭৬
আক্রান্ত ৩৬৮ ১,৯৪৬,৭৩৭
সুস্থ ৪,০১৮ ১,৮৩৯,৯৯৮
মৃত ১৩ ২৯,০৭৭

Our Facebook Page