ঢাকা, রবিবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

ভিভিআইপিদের জন্য কখনও রাস্তা বন্ধ করা যাবে না : মমতা ব্যানার্জী

ভিভিআইপিদের যাতায়াত সুবিধা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রায়ই শহুরে রাস্তা বন্ধ থাকে। বাংলাদেশসহ পাশের ভারতেও এ দৃশ্য খুবই সাধারণ। এতে ভোগান্তিতে পড়ে রাস্তায় চলাচল করা জনসাধারণ। সম্প্রতি এমনই এক দৃশ্য নাড়া দেয় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে। এরই নিদান দিলেন তিনি।


ভিভিআইপিদের যাতায়াতের সময়ে বন্ধ রাখা যাবে না সেই রাস্তার যান চলাচল। এমনকি, উল্টো দিকের লেনেও আগে থেকে আটকানো যাবে না কোনও গাড়ি। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য হবে একই নিয়ম। এমনই নিয়মের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে প্রশংসিত ভারতের পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।


মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, তার গাড়ি যাবে বলে রাস্তায় অন্যান্য গাড়ি আটকে থাকবে, এটা তিনি কোনোভাবেই চান না। কারণ, তাতে সাধারণ মানুষের পথের ভোগান্তি আরও বাড়ে। জানা যায়, মুখ্যমন্ত্রীসহ ভারতের অন্যান্য ভিভিআইপিদের নিরাপত্তার কথা মাথার রেখে তার যাতায়াতের সময়ে আগে থেকেই রাস্তায় গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দিতেন পুলিশকর্তারা। যার ফলে ভিভিআইপিদের গাড়ি বিনা বাধায় যাতায়াত করলেও ব্যস্ত সময়ে ভোগান্তিতে পড়তে হত অসংখ্য সাধারণ মানুষকে।


ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে দাবি, গত সপ্তাহে বাড়ি থেকে বিধানসভায় যাওয়ার পথে মুখ্যমন্ত্রী দেখেন, রাস্তা পুরো ফাঁকা। তিনি খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন, সেখানে আগে থেকেই গাড়ি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছিল। বিষয়টি মমতার পছন্দ না হওয়ায় তিনি তা পুলিশকর্তাদের নজরে আনেন। এর পরেই এ নিয়ে তৎপর হন পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ। কলকাতা শহরের ২৫টি ট্র্যাফিক গার্ডকে জানানো হয়, রাস্তা দিয়ে কোনও ভিভিআইপি অথবা স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী যাতায়াত করলেও গাড়ি চলাচল আটকানো যাবে না। যার ভিত্তিতে সোমবার থেকে মুখ্যমন্ত্রীর যাতায়াতের পথে আগে থেকে গাড়ি আটকানো বন্ধ হয়েছে।

ads
ads

করোনা পরিস্থিতি বাংলাদেশ

২৪ ঘণ্টায় মোট
পরীক্ষা ৩৪০৬৭ ২৯৩২৭৬
আক্রান্ত ৩৬৮ ১,৯৪৬,৭৩৭
সুস্থ ৪,০১৮ ১,৮৩৯,৯৯৮
মৃত ১৩ ২৯,০৭৭

Our Facebook Page