ঢাকা, শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪

ওয়ার্ডে ঠাঁই নেই, বারান্দায় চলছে ডায়রিয়া রোগীর চিকিৎসা

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রতিদিন বেড়েই চলছে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হঠাৎ ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বাড়ায় স্যালাইন ও জনবল সংকটে চিকিৎসা সেবা প্রদান করতে প্রতিনিয়ত হিমশিম খাচ্ছেন কর্তব্যরত নার্স ও চিকিৎসকরা।


ওয়ার্ডে জায়গা না হওয়ায় ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীরা নিরুপায় হয়ে বারান্দায় শুয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এতে দুর্ভোগ বাড়ছে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের।


গতকাল সোমবার (২৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় বোয়ালখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখা যায়, ৫০ শয্যার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বাইরে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে অনেক বেশি রোগী ভর্তি আছে। নির্ধারিত বেডের পাশে মেঝেতে শয্যা বিছিয়ে ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের করিডোরের মেঝেতে রোগীরা অবস্থান নিয়েছে।


স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, বোয়ালখালীতে রমজান মাসের শুরু থেকে ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দিয়েছে। তীব্র ডায়রিয়া, পেট ব্যথা, বমি নিয়ে দৈনিক ৪৫ থেকে ৫০ জন রোগী ভর্তি হচ্ছে। এর মধ্যে ৯০ থেকে ৯৫ শতাংশই পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত। গত ৩ থেকে ৪ দিনে শতাধিক ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছে। অন্যান্য রোগীর সাথে ডায়রিয়া রোগী সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় রোগীদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করতে বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে। পরিস্থিতি উদ্বেগজনক হিসেবে দেখছেন সংশ্লিষ্টরা।


অন্য দিকে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও তাদের স্বজনদের বলেন, মিলছে না স্যালাইন। আমাদের বাহির থেকে স্যালাইন নিয়ে আসতে হচ্ছে।


তারা বলেন- সেবা পাচ্ছি মোটামুটি। রোগী বেশি, তারাও যাবে কোথায়? রোগীরা বলেন- পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারটি আরও কঠোরভাবে দেখা জরুরি।


বোয়ালখালী উপজেলার কর্তব্যরত মেডিকেল অফিসার ডা. উম্মুল খাইর মারজান বলেন, হঠাৎ করে গরম বেড়ে যাওয়ায় এই পরিস্থিতি হয়েছে। যত্রতত্র স্থান থেকে পানি পান ও খাবার খাওয়ার ফলে এ অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে বলে মনে করছেন তিনি।


বোয়ালখালী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. প্রতীক সেন বলেন, ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় চিকিৎসা সেবা দিতে একটু সমস্যা হচ্ছে। আমরা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। আশা করি সমাধান হবে।

ads

Our Facebook Page