ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০

মাদরাসা শিক্ষকদের সেপ্টেম্বরের এমপিওর চেক ছাড়

স্কুল-কলেজের গভর্নিংবডি-ম্যানেজিং কমিটির বিধিমালা থেকে সভাপতি মনোনয়নের ক্ষেত্রে শিক্ষানুরাগী, খ্যাতিমান সমাজসেবক ও জনপ্রতিনিধি শব্দ তিনটি কেন বাদ দেয়া হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। এ বিষয়ে করা এক রিট আবেদনের শুনানি শেষে গতকাল সোমবার (৫ অক্টোবর) হাইকোর্টের বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রুল জারি করেন।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে শিক্ষা সচিব, রাজশাহীর মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।আদালতে আজ রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. হুমায়ন কবির। বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ম্যানেজিং কমিটি-গভর্নিংবডি বিধিমালায় শিক্ষানুরাগী, খ্যাতিমান সমাজসেবক ও জনপ্রতিনিধি এ তিনটি শব্দ থাকায় অশিক্ষিত বা স্বল্পশিক্ষিতরা সভাপতি হওয়ার সুযোগ পান। যা অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের গভর্নিংবডি-ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদের যোগ্যতার সঙ্গে সাংঘর্ষিক। যেমন, প্রাথমিক বিদ্যালয়, ডিগ্রি কলেজ এবং ফাজিল-কামিল মাদরাসায় গভর্নিংবডি-ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হতে ডিগ্রি পাসের যোগ্যতা থাকতে হয়।

তাই মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মাদরাসার ম্যানেজিং কমিটি-গভর্নিংবডি বিধিমালা-২০০৯ থেকে এ তিনটি শব্দ উঠিয়ে দেয়া হলে মাধ্যমিক স্কুল, ইন্টারমিডিয়েট কলেজ ও দাখিল-আলিম মাদরাসায় শিক্ষিত যোগ্যতাসম্পন্ন লোকদের সভাপতি হওয়ার দ্বার উন্মোচিত হবে।

এর আগে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক স্তরের বেসরকারি গভর্নিংবডি ও ম্যানেজিং কমিটি প্রবিধিমালা-২০০৯ এ সভাপতি মনোনয়ন বা নির্বাচনের ক্ষেত্রে শিক্ষানুরাগী, খ্যাতিমান সমাজসেবক, জনপ্রতিনিধি এই শব্দ তিনটি রাখার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করেন সিরাজগঞ্জের একটি স্কুলের সদস্য। সে আবেদন শুনানি শেষে এ রুল জারি করেছেন আদালত।


করোনা পরিস্থিতি বাংলাদেশ

২৪ ঘণ্টায় মোট
পরীক্ষা ১৪৯৫৮ ২২২১৩৬৯
আক্রান্ত ১৬৯৬ ৩৯৪৮২৭
সুস্থ ১৬৮৭ ৩১০৫৩২
মৃত ২৪ ৫৭৪৭

Prayer Times

Calender

Printcal.net Calendar Widget

Our Facebook Page