ঢাকা, সোমবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২০

ময়মনসিংহের তারাকান্দায় আগামী ইউপি নির্বাচনে আ'লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী রফিকুল ইসলাম সাইদ

ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলায়  আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১০ নম্বর বিশকা ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামীলীগ দলীয় সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন প্রত্যাশী বিশিষ্ট সমাজসেবক   ও রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব  মোঃ রফিকুল ইসলাম সাইদ।  সে লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যকে সামনে রেখেই সম্প্রতি তিনি এলাকায় জনসংযোগ, সামাজিক,সাংস্কৃতিক,রাজনৈতিক কার্যক্রম ও এলাকার উন্নয়নমূলক সকল কর্মকাণ্ডে নিয়মিত অংশগ্রহণ করছেন। 


যদিও ময়মনসিংহ-২ আসনের  স্থানীয় সাংসদ ও বাংলাদেশ সরকারের জাতীয় গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদের একান্ত প্রিয় ও আস্থাভাজন একজন মানুষ তিনি। ব্যাক্তি হিসেবে পরোপকারী ,চিন্তাশীল, দানবীর ও একজন উত্তম সংগঠক হিসেবে এলাকায় যথেষ্ট সুনাম রয়েছে তার।  তারাকান্দা উপজেলা  আওয়ামীলীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করায় রাজনীতিবিদ হিসেবে একজন পরিচ্ছন্ন ইমেজের মানুষ হিসেবে পুরো উপজেলাতেই খুবই পরিচিত ও সকলের প্রিয় মানুষ তিনি। ফলে   এলাকার  সমাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিকসহ নানামুখী উন্নয়নমূলক  কর্মকান্ডে আগে থেকেই নিয়মিত অংশগ্রহণ করতেন তিনি।


এবার উপজেলার  ১০ নম্বর বিশকা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে ইউনিয়নের  সকল জনসাধারণের সুখ-দুঃখকে সাথী করে পুরো ইউনিয়নের সার্বিক  উন্নয়নের দায়িত্বভার গ্রহণ করতে চান তিনি। ১০ নম্বর বিশকা ইউনিয়নের অনেক বাসিন্দাদের সাথেই কথা হয়েছে বিষয়টি নিয়ে। তারাও চান বিগত দিনের প্রতিনিধিত্বের পরিবর্তন ও নতুন মুখের আগমন হিসেবে ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ দলীয় সম্ভাব্য  চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী  হিসেবে রফিকুল ইসলাম সাইদই মনোনয়ন পাবেন। তিনি নির্বাচিত হয়ে চেয়ারম্যান পদে আসীন হলে ইউনিয়ন পরিষদ এলাকার সকল বাসিন্দাদের ভাগ্যবদলসহ পুরো ইউনিয়ন পরিষদ এলাকার চিত্র পাল্টে যাবে বলেও  তারা আশাবাদ ব্যাক্ত করেন।


এপ্রসঙ্গে রফিকুল ইসলাম সাইদের অনুভূতি জানতে চাইলে তিনি বলেন,জনগণের কল্যান ও অগ্রগতি সাধন রাষ্ট্রের দায়িত্ব ও কর্তব্য। সাধারণ মানুষের কল্যান ও মৌলিক অধিকার পুরনে সরকার সবসময়ই শতভাগ সচেতনতার পাশাপাশি প্রতিমুহূর্তেই তৎপর থাকে। মানুষের বেঁচে থাকা,বিশেষত নিরাপত্তার সাথে সঙ্গে জীবনযাপনের নিশ্চয়তার দায়ভার অবশ্যই সরকারের। তাদের অধিকার রক্ষা এবং তা পুরনে ও জনগনকে সার্বিক সেবাদানের অঙ্গীকার নিয়েই বিভিন্ন রাজনৈতিক দল জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে সরকার গঠন করে থাকে। ফলে স্থানীয় সকল জনসাধারণের কল্যানে সরকারের করণীয় সকল দায়িত্বভার স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের উপরেই বর্তায়। ফলে প্রতিটি এলাকার সর্বক্ষেত্রে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কর্মকান্ডই সরকারকে ওই এলাকার সকল জনসাধারণের নিকট আস্থার সর্বোচ্চ চুড়ায় পৌছে দেয়। 


আমি দীর্ঘ বিশ বছর যাবৎ আওয়ামীলীগের একজন একনিষ্ঠ ও নিবেদিত  কর্মী হিসবে ইউনিয়েনের ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসছি। এরই ধারাবাহিকতায় আজ আমি তারাকান্দা উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছি। সেই ছোটবেলা থেকেই সাধারণ মানুষের দুঃখ দূর্দশায় আমার প্রাণ কাঁদে। এবার আমি আমার ১০ নম্বর বিশকা ইউনিয়নবাসীদের জন্যে কিছু করতে চাই। গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেও চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে আমি আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলাম। তখন দল আমাকে মনোনয়ন না দিলে ইউনিয়নবাসী আমাকে সতন্ত্র পার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে বারংবার উৎসাহ প্রদান করলেও আমি নিজে আমার রাজনৈতিক অভিভাবক স্থানীয় সাংসদ জনাব শরীফ আহমেদ এমপি মহোদয়ের পরামর্শে  দলের সিদ্ধান্তকেই সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে দলীয়


প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী কার্যক্রম ও প্রচার প্রচারণায় অংশ নিয়েছিলাম। আস্থার সাথে একরকম জোর দিয়েই রফিকুল ইসলাম সাইদ আরো বলেন, তবে এবার আমি শতভাগ আশাবাদী। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্থানীয় ময়মনসিংহ -২ আসনের মাননীয় সাংসদ ও বাংলাদেশ সরকারের জাতীয় গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী, আমার রাজনৈতিক অভিভাবক জনাব শরীফ আহমেদ মহোদয় এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা,বিশ্ব-মানবতার মা, দেশনেত্রী,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবার আমাকেই ১০ নম্বর বিশকা ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিয়ে অন্তত একটিবারের জন্যে হলেও নিজেকে প্রমাণ করার সুযোগ দিবেন। আর এসুযোগটি শতভাগ ইতিবাচকভাবে কাজে লাগিয়ে ইউনিয়নের সার্বিক উন্নয়নে নিজেকে উৎসর্গ করে দেয়ার অঙ্গীকার ও প্রত্যয় ব্যাক্ত করেন তিনি।

করোনা পরিস্থিতি বাংলাদেশ

২৪ ঘণ্টায় মোট
পরীক্ষা ১১১০৩ ২২৫৭৫৮৯
আক্রান্ত ১০৯৪ ৩৯৮৮১৫
সুস্থ ১৫৪৪ ৩১৫১০৭
মৃত ২৩ ৫৮০৩

Prayer Times

Calender

Printcal.net Calendar Widget

Our Facebook Page