ঢাকা, রবিবার, ১ আগস্ট, ২০২১

বিমান দুর্ঘটনা: বিখ্যাত মডেল নিহত, বেঁচে আছেন ইয়াসির

পাকিস্তানের করাচি শহরে ভয়াবহ বিমান দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন দেশটির শীর্ষ মডেল জারা আবিদ।শুক্রবার (২২ মে) দুপুরে করাচির জিন্না ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টের কাছে ভেঙে পড়ে যাত্রীবাহী বিমানটি। সেই বিমানে যাত্রী ও ক্রু মিলিয়ে ৯৯ জন আরোহী ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। এই দুর্ঘটনায় বিমানের ৯৭ জন আরোহী নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে সে দেশের আলোচিত মডেল জারা আবিদের নামও রয়েছে।

ওই মডেলের মৃত্যুর খবর ইতিমধ্যেই অনেকে জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তার বন্ধু ও শুভাকাঙ্খীরা তার মৃত্যুর খবরে শোকাহত।

বিমান ভেঙে পড়ার খবর সামনে আসার পরই বিমানের যাত্রী তালিকা প্রকাশ করা হয়। আর তাতে নাম ছিল জারার। এরপরই তার বন্ধুবান্ধরা সোশ্যাল মিডিয়ায় তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন।

পাকিস্তানের পোশাকের ব্র্যান্ড ‘সানা শাফিনাজ’-এর একটি শো করছিলেন ওই মডেল। কিন্তু তার আত্মীয়ের মৃত্যুর খবর শুনে তাকে লাহোর যেতে হয়েছিল। সেখান থেকেই ফেরার পথেই এই দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান তিনি।

পিআইএ-র মুখপাত্র আব্দুল সাত্তার জানিয়েছেন, ফ্লাইট ৮৩০৩ বিমানটি লাহোর থেকে করাচির দিকে উড়ে যাচ্ছিল। করাচিতে অবতরণ করার ঠিক আগেই এটি ভেঙে পড়ে।

এই ঘটনার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে বিমান দুর্ঘটনায় মারা গেছেন পাকিস্তান জাতীয় দলের লেগ স্পিনার ৩৪ বছর বয়সী ইয়াসির শাহ। শেষ পর্যন্ত ইয়াসির শাহ নিজেই টুইটে লিখেছেন, ‘সর্বশক্তিমানের প্রতি কৃতজ্ঞতা, আমি নিজের ঘরে নিরাপদেই আছি। উড়োজাহাজ দুর্ঘটনায় যাদেরকে হারিয়েছি, তাদের জন্য প্রার্থনা করছি। আল্লাহ তাদেরকে জান্নাত উল ফিরদাউস দান করুন।’

এদিকে বেঁচে যাওয়া যাত্রীদের একজন মুহাম্মদ জুবায়ের জানান, বিমানটি স্বাভাবিকভাবেই উড়ছিল এবং ভেতর থেকে যাত্রীরা বুঝতেই পারেন নি যে বিমানটি মাটিতে পড়ে যাচ্ছে। এ সময় তিনি সংজ্ঞা হারিয়ে ফেলেছিলেন, কিন্তু একটু পর জ্ঞান ফিরে এলে তিনি দেখতে পান চারদিকে আগুন জ্বলছে।

তিনি বলেন, মানুষের আর্তচিৎকার শুনছিলাম সব দিক থেকে - প্রাপ্তবয়স্ক, শিশু সবার আর্তচিৎকার। যেদিকে তাকাচ্ছি শুধু আগুন আর আগুন। কোন মানুষ দেখতে পাইনি -শুধু চিৎকার শুনেছি। আমি সিটবেল্ট খুলে ফেলি। তারপর আলো দেখতে পাই। আলোর দিকে ছুটে যাই আমি তারপর লাফ দিই ১০ ফুট নিচে। ধ্বংসাবশেষ থেকে লাফিয়ে পড়ে প্রাণে বেঁচে যাই।

ads
ads

করোনা পরিস্থিতি বাংলাদেশ

২৪ ঘণ্টায় মোট
পরীক্ষা ৫২৪৭৮ ৭৬১২৫৮৮
আক্রান্ত ৯,৩৬৯ ১,২৪৯,৪৮৪
সুস্থ ১৪,০১৭ ১,০৭৮,২১২
মৃত ২১৮ ২০,৬৮৫

Our Facebook Page