ঢাকা, রবিবার, ৭ মার্চ, ২০২১

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে থেরাঙ্গার গুডবাই

সুনামি লন্ডভন্ড করে দিয়েছে তার বাড়ি ঘর। এই ভয়াবহতার মধ্যেও ছিলেন ক্রিকেটে অবিচল। ২০০৬ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটে করেছেন সর্বাধিক রান (২৬ ওয়ানডে ম্যাচে ৫ সেঞ্চুরি,৪ ফিফটিতে ১০৬২ রান)। যেভাবে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন বাঁ হাতি টপ অর্ডার উপল থেরাঙ্গা,সেই পারফরমেন্সে হয়েছে ছন্দপতন। টেস্টে মেলে ধরতে পারেননি সেভাবে এই লংকান (৩১ টেস্টে ৩১.৮৯ গড়ে ১৭৫৪রান)।


২০১৭ সালে থেমেছে তার টেস্ট ক্যারিয়ার। ওয়ানডে ক্রিকেটে টিকে ছিলেন ১৪ বছর। তবে ২০১৯ বিশ্বকাপে জায়গা হয়নি তার শ্রীলংকা দলে। আর মাত্র ৪৯ রান করতে পারলে ৮ম শ্রীলংকান হিসেবে ৭ হাজারী ক্লাবের সদস্যপদ পেতেন। তবে ৪৯ রানের আক্ষেপ নিয়েই থামতে হলো ৩১ টেস্ট,২৩৫ ওয়ানডে এবং ২৬ টি-২০ খেলা এই শ্রীলংকানের।


২০১৯-এর মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ৩ ম্যাচের সিরিজে মাত্র ১৫ রানে সে-ই যে থেমেছেন,আর ফিরতে পারেননি শ্রীলংকা দলে। ২২টি ওয়ানডে ম্যাচে ক্যাপ্টেনসির ব্যর্থতাও (২২ ম্যাচে ৪ জয়,১৬ হার) দুঃস্বপ্ন ছিল তার। 


৩৬ বছরে এসে তাই পরিস্থিতির মুখে সব ধরনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে গুডবাই জানিয়েছেন উপল থেরাঙ্গা। ক্রিকবাজ এ তথ্য দিয়েছে। অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়ে টুইটারে জানিয়েছেন-'পুরানো একটা  প্রবাদ অছে,সব ভাল জিনিসের অবসান হওয়া উচিত।  আমি বিশ্বাস করি যে ১৫ বছরে আমি আমার খেলাটিতে সব কিছু দিয়েছি। এখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারকে বিদায় জানানো এখন সময় এসেছে।'

করোনা পরিস্থিতি বাংলাদেশ

২৪ ঘণ্টায় মোট
পরীক্ষা ১৩০৮২ ৪১৩২২১৩
আক্রান্ত ৫৪০ ৫৪৯৭২৪
সুস্থ ৮২২ ৫১০৯৬৬
মৃত ১০ ৮৪৫১

Our Facebook Page