ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১

হাসপাতাল থেকে পালানো ৭ করোনা রোগীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তির পর পালিয়ে যাওয়া ১০ করোনা রোগীর মধ্যে ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার সকালে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। ১০ রোগীর মধ্যে সাতজন ভারতফেরত এবং তিনজন স্থানীয়ভাবে করোনায় সংক্রমিত।


হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যাওয়ার পর তাদের ফিরিয়ে এনে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। পরে পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত এই ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। সোমবার সকালে পুলিশ হাসপাতাল থেকে তাদের মধ্যে সাতজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়। যশোর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


গ্রেপ্তাররা হলেন, ভারতফেরত যশোর শহরের পশ্চিম বারান্দিপাড়া এলাকার বিশ্বনাথ দত্তের স্ত্রী মণিমালা দত্ত (৪৯), সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার প্রতাপপাড়া গ্রামের মিলন হোসেন (৩২), রাজবাড়ী সদর উপজেলার রামকান্তপুর গ্রামের নাসিমা আক্তার (৫০), খুলনা সদর উপজেলার বিবেকানন্দ (৫২), খুলনার পাইকগাছা উপজেলার ডামরাইল গ্রামের আমিরুল সানা (৫২), খুলনার রূপসা উপজেলার সোহেল সরদার (১৭) এবং স্থানীয় রোগী যশোর সদর উপজেলার পাঁচবাড়িয়া গ্রামের রবিউল ইসলামের স্ত্রী ফাতেমা (১৯)।


এছাড়া ভারতফেরত সাতক্ষীরার কালীগঞ্জের শেফালি রানী সরদার (৪০) এবং স্থানীয় যশোর সদর উপজেলার পাঁচবাড়িয়া গ্রামের একরামুল কবীরের স্ত্রী রুমা (৩০) ও যশোর শহরের ওয়াপদা গ্যারেজ এলাকার ভদ্র বিশ্বাসের ছেলে প্রদীপ বিশ্বাস (৩৭) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।


পুলিশ জানায়, যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পালিয়ে যাওয়া ১০ জন করোনা সংক্রমিত রোগীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পুলিশকে বলেন। এরপর গত শনিবার যশোর কোতোয়ালি থানা পুলিশ আদালতে আবেদন দাখিল করে। গতকাল রোববার আদালত তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। সোমবার সকালে হাসপাতাল থেকে সাতজনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়। এরপর সেখান থেকে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠায়। গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত অপর তিনজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।


প্রসঙ্গত, গত ১৮ থেকে ২৪ এপ্রিলের মধ্যে করোনায় সংক্রমিত সাতজন যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দর হয়ে দেশে আসেন। তাদের মধ্যে ১৮ এপ্রিল একজন, ২৩ এপ্রিল পাঁচজন ও ২৪ এপ্রিল একজন আসেন। তাদের জরুরি বিভাগ থেকে হাসপাতালের তৃতীয় তলায় করোনা ওয়ার্ডে পাঠালে তারা ওয়ার্ডে না গিয়ে সেখান থেকে পালিয়ে যান।

ads
ads

করোনা পরিস্থিতি বাংলাদেশ

২৪ ঘণ্টায় মোট
পরীক্ষা ২২২৬২ ৬৩২৭৭৩৪
আক্রান্ত ৫,৭২৭ ৮৬৬,৮৭৭
সুস্থ ৩,১৬৮ ৭৯১,৫৫৩
মৃত ৮৫ ১৩,৭৮৭

Our Facebook Page