ঢাকা, রবিবার, ১ আগস্ট, ২০২১

স্পেনে বাংলাদেশিদের ঈদুল আজহা উদযাপন

স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদে ধর্মীয় বিশ্বাস ও উৎসবমুখর আবহে উদযাপিত হয়েছে মুসলমানদের বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা। ইউরোপের অন্যান্য দেশের মতো স্পেনেও আজ (২০ জুলাই) মুসলমানদের পবিত্র ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা উদযাপিত হচ্ছে। দেশটিতে করোনার প্রাদুর্ভাব কিছুটা বেড়ে যাওয়ার পরও স্বাস্থ্যবিধি মেনে দেশটির মসজিদগুলোতে এবং কয়েকটি খোলা জায়গায় ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাজধানী শহর মাদ্রিদ, পর্যটন নগরী বার্সেলোনা, কানারিয়াস দ্বীপপুঞ্জসহ বিভিন্ন শহরে ছড়িয়ে থাকা প্রবাসী বাংলাদেশিরা ঈদের নামাজ আদায় করে ও একে অপরের সাথে কুশলাদি বিনিময় করে ঈদের দিনকে আনন্দময় করার চেষ্টা করেন। স্পেনের মাদ্রিদে আজ (২০ জুলাই) স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ৩০ মিনিট থেকে ১০টা ৩০ মিনিটের মধ্যেই প্রায় সব ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। ঈদের নামাজে অন্য দেশীয়দের সঙ্গে সমবেত হন স্থানীয় বাংলাদেশি মুসলমানেরাও।


স্পেনে প্রকাশ্যে পশু কোরবাণি দেয়ার নিয়ম না থাকায় স্থানীয় গ্রোসারি দোকান থেকে মাংস কিনে নিয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। রাজধানী শহর মাদ্রিদে এম থার্টি ‘সেন্ত্র কুলতুরাল ইসলামিকো দে মাদ্রিদ’- এ স্পেনের সবচেয়ে বড় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত এ জামাতে স্পেনে অবস্থানরত বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসলিম অনেক কুটনৈতিক ব্যক্তিবর্গ নামাজ আদায় করেন। বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকা লাভাপিয়েস সংলগ্ন বায়তুল মুকাররম জামে মসজিদে ঈদের নামাজের ৫টি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৭টা ৩০, ৮টা ১৫, ৯টা, ৯টা ৪৫ ও ১০টা ৩০ মিনিটে অনুষ্ঠিত ঈদের জামাতগুলোতে পাঁচ শতাধিক মুসল্লি অংশগ্রহণ করেন। প্রথম জামাতে ঈদের নামাজ আদায় করেন স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারোয়ার মাহমুদ, বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সেলর ও দূতালয় প্রধান এটিএম আব্দুর রউফ মন্ডল, মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি খোরশেদ আলম মজুমদার, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন স্পেন এর সভাপতি কাজী এনায়েতুল করিম তারেক, সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান সুন্দর, ভালিয়েন্তে বাংলার সভাপতি মোঃ ফজলে এলাহী, সাধারণ সম্পাদক রমিজ উদ্দিন, কমিউনিটি নেতা দুলাল সাফা, মাহবুবুর রহমান ঝন্টু, রাসেল দেওয়ান,জালাল আহমেদ,আব্দুল কাইয়ুম মাসুক, রিজভী আলম, তামিম চৌধুরী, বিল্লাল আহমেদ শাকিল,সহ স্থানীয় বাংলাদেশি কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ। এছাড়াও মাদ্রিদে শাহ জালাল লতিফিয়া জামে মসজিদে ৪টি ও আল হুদা মসজিদে ২টি ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

কাতালোনিয়া প্রদেশের বার্সেলোনায় বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকাগুলোর বাংলাদেশি পরিচালনাধীন মসজিদগুলোতেও ঈদুল আজহার নামাজের বেশ কয়েকটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। বর্তমান সময়ে করোনা সংক্রমণের মাত্রা কাতালোনিয়া প্রদেশে বৃদ্ধি পাওয়ায় রাত ১টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত  কারফিউ জারি থাকলেও সেখানে বসবাসরত মুসলমান প্রবাসী বাংলাদেশিরা ঈদের আনন্দ নিজেদের মধ্যে ভাগাভাগি করে নেন। ঈদের নামাজ আদায় করার জন্য মুসল্লীদের বাসা থেকে অযু করে এবং জায়নামাজ সাথে করে নিয়ে আসার নিদের্শনা ছিল। শাহ জালাল জামে মসজিদ কর্তৃপক্ষের আয়োজনে মসজিদে সকাল ৭টা ও ৮টা ৩০ মিনিটে দুইটি এবং মসজিদের সম্মুখে খোলা ময়দানে সকাল ৭টা ৩০মিনিটে ঈদের একটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। লতিফিয়া ফুলতলী জামে মসজিদে সকাল ৬টা ৫৫,  ৭টা ২৫, ৭টা ৫৫ ও ৮টা ২৫ মিনিটে মোট ৪টি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। বার্সেলোনা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ কর্তৃপক্ষের আয়োজনে মসজিদে সকাল ৭টা ও ৯টা ৩০ মিনিটে দুইটি এবং সকাল ৮টায়  মাকবায় খোলা ময়দানে ঈদের একটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। সুনামগঞ্জ অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে প্লাজা ব্লাঙ্কেরনাতে খোলা ময়দানে সকাল ৭টা ৩০ ও ৮টা ৩০ মিনিটে ঈদের দুইটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। প্রত্যেকটি জামাতের নামাজ শেষে খুতবায় করোনা থেকে মুক্তির জন্য আল্লাহ’র কাছে বিশেষ ফরিয়াদ, বিশেষ করে বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি অবনতি হওয়ায় বাংলাদেশের জন্য দোয়া করা হয়।


কানারিয়া দ্বীপপুঞ্জভুক্ত শহর টেনেরিফেও ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। উল্লেখযোগ্য সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশিরা ঈদের নামাজ পড়ে এবং একে অপরের সাথে ঈদের কুশলাদি বিনিময় করে ঈদ উদযাপন  করেছেন। ওখানেও ছিল স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশনা। জামাত গুলোতে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তানসহ বেশ কয়েকটি দেশের অভিবাসীরা নামাজ আদায় করেন।

ads
ads

করোনা পরিস্থিতি বাংলাদেশ

২৪ ঘণ্টায় মোট
পরীক্ষা ৫২৪৭৮ ৭৬১২৫৮৮
আক্রান্ত ৯,৩৬৯ ১,২৪৯,৪৮৪
সুস্থ ১৪,০১৭ ১,০৭৮,২১২
মৃত ২১৮ ২০,৬৮৫

Our Facebook Page